অণুগল্প ফুটপাত

নীলক্ষেতের ফুটপাত ধরে হাঁটছিলাম। একা। একটু মনে হয় আনমনা ছিলাম। হঠাৎ গায়ে গায়ে ঘেঁষা লাগলো একজনের সঙ্গে। তাকিয়ে দেখি, একজন তরুণী। মুখে আমার তুবরি ছুটল, স্যরি স্যরি। অনেকবার বলা হল কথাটা। আমি খেয়াল করিনি, মেয়েটাও অনবরত বলে যাচ্ছে, স্যরি স্যরি।
আমরা দুজনে দুদিকে হাঁটা শুরু করি। সে একবার পিছনে ফিরে তাকায়। একবার আমিও ফিরে তাকাই।
দুবছর পরের কথা।
একই বাসায় থাকি। একই ছাদের নিচে। সেই মেয়েটি এখন আমার স্ত্রী। অথবা আমি তার স্বামী।
খুব ছোট বাসা। গায়ে গায়ে ঘেঁষা লাগেই। তবে গায়ে গায়ে ধাক্কা লাগলেও আমরা পরস্পরকে কেউ কিছু বলি না। স্যরি তো দূরের কথা, মুখ তুলেও কেউ কারো দিকে তাকাই না।
নীলক্ষেতের ফুটপাতের কথা খুব মনে পড়ে আজ।
ইস, আমাদের ছোট্ট বাসায় যদি একটা ফুটপাত থাকতো!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


1 + eight =