ডা. মোহিত কামাল

ডা. মোহিত কামাল

মহাকাব্যের জনক হচ্ছেন কবি কায়কোবাদ। মুন্সিগঞ্জে তাঁর বাড়ি। অণুকাব্যের জনক হচ্ছেন দন্ত্যস রওশন, তাঁর বাড়ি নবাবগঞ্জ। মহা আর অণু’র মধ্যে সংযোগ সাঁকো তৈরি করেছেন দন্ত্যস রওশন। অণু’র মধ্য দিয়ে বিস্ফোরণ ঘটে মহাভাবতরঙ্গের। ক্ষদ্রতম অণুকথায় প্রকাশ পায় বিস্তৃত ভাবের উচ্ছাস। অণুশব্দের কাঠামোর ওপর দাঁড়িয়ে তৈরি হয় ভাবের হিমালয় সমান উঁচু পাহাড় । সমসাময়িক প্রজন্ম মূল্য দিয়ে চায় না, মূল্য বুঝতে পারে না, বা অন্যের সৃষ্ট মূল্যবান মানিকরতন লুকিয়ে রাখতে চায় সহজাত ঈর্ষা ও হিংসার গোপন ও অদৃশ্য তাড়না নিভিয়ে রাখে মহাআবিষ্কারের আলোকশিখা। সময় গড়িয়ে গেলে, কালোত্তীর্ণ সময়ে কোনো এক মেধাবী প্রজন্ম হিংসা ও ঈর্ষার শক্ত আভরণ ফুঁড়ে বেরিয়ে আসবে; মেলে ধরবে অণুর ভিতের ওপর গড়ে ওঠা মহাজাগতিক জৌতির্ম্ময় আলো। অণুকাব্যের মুল্যায়নে এ বিশ্বাস লালন করি সমসাময়িককালেই। অণুর মাধ্যমে মহাসৃষ্টির এমন নজির নেই বিশ্বসাহিত্যে। সমালোচকরা হয়তো ভাববেন, ঘনিষ্টজনের এই কাব্য-বিশ্লেষণে আবেগপ্রবণ কথার ফুলঝুরি ছড়াচ্ছি । যে যায় মতো করে ভাবতে পারেন; তবে সব ভাবনার উর্ধ্বে এ কথা স্পষ্ট করে বলা যায় এটি কেবল আবেগতারিত ব্যবচ্ছেদ নয়, এখানে রয়েছে আবেগবর্জিত চিন্তা-ভাবনার প্রকাশ। দৈনন্দিন জীবনের টুকরো ধারণা, অনুভূতি, চিন্তা এবং নতুন বোধ কল্পলোকে ছড়িয়ে ব্যাপক উল্লাস তৈরি করার মনন ও সৃজন ক্ষমতার সত্য প্রকাশ রয়েছে অণুকাব্যে। নতুন এ কাব্যধারায় শব্দের গাঁথুনিতে সেই উল্লাস অনুভব করি একজন সচেতন পাঠক হিসেবে। দেখার সুযোগ পাই ছোট্ট কথায় মধ্যে ব্যাপক সৃজনশীলও মননশীল চর্চার বিস্তার। অণুকাব্যের জনক দন্ত্যস রওশন ভবিষ্যতেও এই কাব্যধারা ধরে রাখবেন বলেই বিশ্বাস রাখি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


− 7 = one